নাসরীন হক-এর ১৬তম মৃত্যু বার্ষিকী

“ধরণীমায়ের শুভ সন্তান আমাদের নাসরীন”
 

১১ বৈশাখ ১৪২৯/২৪ এপ্রিল ২০২২, রবিবার বিকাল ৫টায় ছায়ানট মিলনাতন, ধানমন্ডিতে নারীপক্ষ’র আয়োজনে
নারী আন্দোলন ও মানবাধিকার কর্মী নাসরীন হক-এর ১৬তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে “ধরণীমায়ের শুভ সন্তান আমাদের
নাসরীন” শীর্ষক অনুষ্ঠান উদ্যাপন করা হয়েছে।
‘আজ যেমন করে গাইছে আকাশ’ রবীন্দ্র সঙ্গীতের সাথে সাথে প্রদীপ প্রজ্জলনের মধ্য দিয়ে তাঁকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।
অনুষ্ঠানে নাসরীন হক এর কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। কবিতা আবৃত্তি করেন সুমনা শিল্পী, সাংগঠনিক ও
দপ্তর সম্পাদক, স্বনন, ঢাকা এবং নারীপক্ষ’র সদস্য নাজমুন নাহার। এছাড়াও গান পরিবেশন করেন মহুয়া মঞ্জুরী সুনন্দা।
অনুষ্ঠানে নাসরীন হকের বন্ধু, স্বজন, শুভানুধ্যায়ী, নারীপক্ষ’র বন্ধু সংগঠনের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।
নাসরীন হক এর কর্ম জীবন, ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে স্মৃতিচারণ করেন:
সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, নির্বাহী পরিচালক, বেলা বলেন, সরকার উন্মোক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিলে
নাসরীন হক এর বিরুদ্ধে গণ সচেতনতা তৈরি করেন যার ফলে সরকার উন্মোক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলন করবে না সেই
চুক্তি করতে বাধ্য হয়েছিল। তিনি আরো বলেন, নাসরীন হক বলেছিলেন আমার দেশের কয়লা প্রয়োজনে আরো একশত
বছর মাটির নিচে থাকবে কিন্তুআমার দেশের এই সম্পদ বিদেশীদের লুট করতে দিব না। আমি তাঁর কাছ থেকেই শিখেছি
যে, নারীবাদী আন্দোলন এবং পরিবেশবাদী আন্দোলনের মূল্যবোধ একই।
শমসের আলী, নাসরীন হক এর প্রাক্তন সহকর্মী: তিনি বলেন আজকে আমাদের দেশের জেলেরা মাছের প্রজনন মৌসুমে
কর্মহীন অবস্থায় ৫মাস যে সরকারী ভাতা পেয়ে থাকেন তার প্রথম উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন নাসরীন হক। এছাড়াও তিনি
সাতক্ষীরার ভূমিহীনদের আন্দোলন রোধ করে এর স্থায়ী সমাধানের জন্য সরকারের সাথে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনার উদ্্েযাগ
গ্রহণ করেন, এর প্রেক্ষিতে তার জীবদ্দশায় সাতক্ষীরার একটি উপজেলার ভূমিহীনদের এই সমস্যার সমাধান হয় পরবর্তীতে
সেই নীতিমালা অনুযায়ী সারাদেশের ভূমিহীনদের আন্দোলনের স্থায়ী সমাধান করা হয়েছে।
জান্নাতুল মাওয়া, নির্বাহী পরিচালক, বিন্দু (সাতক্ষীরা) নাসরীন হক এর স্মৃতিচারণ করেন।
 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন নারীপক্ষ’র সদস্য কামরুন নাহার, সমন্বয়কারীর দায়িত্ব পালন করেন তামান্না খান।
 

নারীপক্ষ’র সদস্য রীনা রায় এর ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।